রাতের আধাঁরে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেলে হিজড়াদের ইয়াবা ব্যবসা

0
17


শাহ আলম রানা, গুইমারা(খাগড়াছড়ি)প্রতিনিধি ॥ মাদক একটি সামাজিক ব্যধির নাম। যার ছোবল থেকে রেহায় পাচ্ছে না যুব সমাজ। সমাজকে ক্রমাগত ধবংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে মদ, গাঁজা, হেরোইন, কোকেন ছাড়াও বর্তমান সমাজের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাদকের নাম ইয়াবা, কেউ বলে বাবা। সম্প্রতি খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় মাদক সেবন ও বিপননকারীর সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। গতকাল দুপুরে মাটিরাঙ্গা সেনা জোনের মাসিক নিরাপত্তা ও মতবিনিময় সভায় জনপ্রতিনিধিদের বক্তব্যে উঠে আসে এমনই অভিযোগ। তারা বলেন, রাতের গভীরে মাটিরাঙ্গা উপজেলার কতিপয় হিজড়াগন ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের সাহায্যে বিভিন্ন স্থানে ইয়াবা‘র ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে অভিযোগকারীরা নম্বরযুক্ত ড্রেসকোড না থাকায় ভাড়ায় চালিত যে সমস্ত মোটরসাইকেলগুলো রাতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করছেন তা সনাক্ত করতে পারেননি।
উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় অবস্থানরত হিজড়া সম্প্রদায়ের জীবন সংগ্রাম‘কে মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে বিবেচনা করলেও সাম্প্রতিক সময়ে তারা যেভাবে মাদক ব্যবসা সহ অসামাজিক ও মাত্রারিক্ত চাঁদাবাজির সাথে নিজেদের যুক্ত করেছেন সামাজিক প্রতিরোধ ও রাষ্ট্রিয় আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মাটিরাঙ্গা সার্কেল। পাশাপাশি ভয়ানক পরিস্থিতি মোকাবেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর সহযোগীতায় মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ অচিরেই উপজেলার অভ্যন্তরে চলমান মাদক ব্যবসায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
এ বিষয়ে মাটিরাঙ্গা হিজড়া সম্প্রদায়ের দলনেত্রী (সর্দার) শাকিলা জানান, আমি ব্যক্তিগতভাবে এই ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত নই। তবে কখনো কখনো আমি ইয়াবা সেবন করি। কিন্তু তা শুধুই আমার হিজরা পরিবারের লোকজনের সাথে। অন্য কোন গোত্রের বা সম্প্রদায়ের লোকজনের সাথে নয়। ইয়াবা ব্যবসায়ের সাথে আমার সম্প্রদায়ের অন্যরা কেউ সম্পৃক্ত আছে কি না তা আমার জানা নাই।
স্থানীয়রা মনে মতে, প্রশাসন ইয়াবা ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ব কমাতে ব্যর্থ হলে ভবিষ্যৎ সমাজ খুবই ভয়ানক বিপদের মুখোমুখি হবে। তাই এখনি এর প্রতিকার হওয়া উচিৎ বলে মনে করছেন সচেতন মহলসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here